Press Release

“প্রতিবন্ধিতা নয়, সক্ষমতাই হোক নিয়োগের মাপকাঠি” এই শ্লোগান নিয়ে ৯ ডিসেম্বর ২০১৭ শনিবার বিজিএমইএ ভবনস্থ এ্যাপারেল ক্লাবে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য বাংলাদেশ বিজনেস এন্ড ডিজএ্যাবিলিটি নেটওয়ার্ক (বিবিডিএন), ক্যাম্পেইন ফর এডুকেশন ও অ্যাকসেস বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন এর যৌথ উদ্যোগে কর্মসংস্থানের মেলার আয়োজন করা হয়। চাকরি মেলার প্রধান উদ্দেশ্য ছিলো প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা, তাদের কাজের দক্ষতা ও সক্ষমতা বিষয়ে নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানকে জানানো ও একাজে নিয়োগকারীদেরকে উৎসাহিত করা। এই কর্মসংস্থান মেলায় ৩০টিরও অধিক চাকরি প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান ও ৩০০ এর অধিক চাকরি প্রত্যাশী প্রতিবন্ধী ব্যক্তি অংশগ্রহণ করেন।

মেলায় তাৎক্ষণিকভাবে সাক্ষাৎকার গ্রহণের মাধ্যমে ৮০ জন প্রতিবন্ধী ব্যক্তিকে নিয়োগপত্র প্রদান করা হয়।

কর্মসংস্থান মেলা উপলক্ষে একই ভেন্যূতে একটি সেমিনারও অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এসডিজি বিষয়ক মূখ্য সমন্বয়কারী জনাব মোঃ আবুল কালাম আজাদ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভারপ্রাপ্ত শ্রম সচিব আফরোজা খান, অতিরিক্ত সচিব (এনএসডিসি সচিবালয়) জনাব এবিএম খোরশেদ আলম বাংলাদেশ এমপ্লয়ারর্স ফেডারেশন এর সভাপতি জনাব কামরান টি রহমান এবং বিজিএমইএ সভাপতি জনাব মোঃ সিদ্দিকুর রহমান। সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ এমপ্লয়ারর্স ফেডারেশন এর সদ্য সাবেক সভাপতি জনাব সালাহউদ্দিন কাশেম খান। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বিবিডিএন কো-চেয়ার জনাব মুর্তেজা আর খান।

সেমিনারে প্রধান অতিথি আবুল কালাম আজাদ তার বক্ত্যবে বলেন, এসডিজি বাস্তবায়নের জন্য প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদেরকে সমাজের মূলধারায় সম্পৃক্ত করতে হবে। দেশের মোট জনসংখ্যার প্রায় ১০% প্রতিবন্ধী জনগোষ্ঠীকে বাদ রেখে দেশের সার্বিক উন্নয়ন সম্ভব নয়।

বিশেষ অতিথি ভারপ্রাপ্ত শ্রম সচিব আফরোজা খান বলেন, চাকরি মেলা বিকেন্দ্রীকরণ জরুরী। প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের সক্ষমতার ভিত্তিতে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি সময়ের দাবি।

বিজিএমই এর সভাপতি জনাব মোঃ সিদ্দিকুর রহমান বলেন, প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের সামাজিক ও পারিবারিক মর্যাদা নিয়ে ভাবার সময় এসেছে। প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের শিক্ষা ও কর্মসংস্থানের জন্য সুযোগ সৃষ্টি করা দরকার।

বাংলাদেশ এমপ্লয়ারর্স ফেডারেশন এর সদ্য সাবেক সভাপতি জনাব সালাহ উদ্দিন কাশেম খান বলেন, যেসকল নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান সিএসআর কার্যক্রম হিসেবে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করছে, তাদের আয়করজনিত বিশেষ সুবিধা প্রদান করা হলে একাজে অন্যরা উৎসাহিত হবে।

আইএলও’র প্রধান কৌশল পরামর্শক জনাব কিশোর কুমার শিং বলেছেন, বিবিডিএন এগিয়ে যাচ্ছে, শক্তিশালী হচ্ছে যা প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদেও জন্য কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি করার ক্ষেত্রে অনন্য ভূমিকা রাখবে।

গণস্বাক্ষরতা অভিযানের উপ-পরিচালক জনাব তপন কুমার দাস বলেন, প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের শিক্ষার পাশাপাশি কারিগরি ও বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণের সাথে তাদেরকে সম্পৃক্ত করতে হবে। দেশের বিভিন্ন জেলায় এবং দুর্গম এলাকায় চাকরি মেলার আয়োজন করতে হবে।

সেমিনারে সাবাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ এমপ্লয়ারর্স ফেডারেশন এর সভাপতি জনাব কামরান টি রহমান ও ধন্যবাদ বক্তব্য রাখেন সিআরপি’র নির্বাহী পরিচালক শফিকুল ইসলাম ।

Skip to content